রাশিয়ার কাছে ৫ গোলে হেরে যা বললেন সৌদি’র কোচ পিস্সি

বিশ্বকাপের তুমুল লড়াই শুরু হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। উদ্বোধনী ম্যাচেই এশিয়ান পরাশক্তি সৌদি আরবের মুখোমুখি হয স্বাগতিক রাশিয়া। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হলো বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ। ৮০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার এই স্টেডিয়াম পুরোটাই দখল করে নিয়েছে যেন রাশিয়ান সমর্থকরা। যেন পুরো লাল সমূদ্র। যদিও মাঝে-মধ্যে রয়েছেন সৌদি আরবের বেশ কিছু সমর্থক।

ম্যাচের ১২ মিনিটে কর্নার সামলাতে ব্যর্থ হন সৌদির ডিফেন্ডাররা। আলেক্সান্দর গোলোভিনের ক্রস থেকে ইউরি গাজিনস্কিয়ি হেড দিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম গোল করে স্বাগতিক দেশকে এগিয়ে নেন। বদলি খেলোয়াড় হিসেবে নামা দেনিস চেরিশভ পরে ৪৩ মিনিটে সৌদির বক্সে দুই ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে গোল করলে ২-০’তে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধার অব্যাহত রাখে রাশিয়া। বিরতি থেকে ফিরে ৫২ মিনিটে ২৫ গজ দূর থেকে সামেদভের শট গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। ৫৬ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ পেয়েছিল সৌদি আরব। আল বুরাকের ডি বক্সের ভেতর বাড়ানো ক্রসে আল জসিম ও আল সাহলাভি দুজনেই পা লাগাতে ব্যর্থ হন। কিন্তু ৭১ মিনিটে আবারো এগিয়ে যায় রাশিয়া। এবারও বদলি খেলোয়াড়ের গোলে ব্যবধান বাড়ায় তারা। ফলস্বরূপ ৭১ মিনিটে আর্তেম জিউবার হেডের গোল থেকে ৩-০’তে এগিয়ে যায় তারা।

ম্যাচের একদম অন্তিম মুহূর্তে দূরপাল্লার দুর্দান্ত শটে নিজের দ্বিতীয় এবং রাশিয়ার হয়ে চতুর্থ গোলটি করেন চেরিশভ। ম্যাচ শেষ বাঁশি বাজার আগে আরো একটি গোল করে রাশিয়া। এবার গোলের খাতায় নাম লেখান গলোভিন। বিশ্বকাপ ফুটবলের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে উদ্বোধনী ম্যাচেই ফ্রি কিকে গোল করলেন গলোভিন। দুই এসিস্টের পাশাপাশি ১ গোল করে ম্যাচের অন্যতম নায়কও বনে গেলেন তিনি। ৫-০ গোলের বিশাল জয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার দিক দিয়ে অনেকটাই এগিয়ে থাকলো রাশিয়া।

ম্যাচ শেষে হতাশার কথা জানান সৌদি কোচ পিস্সি। তিনি বলেন, “এটা ছিল কঠিন একটি ম্যাচ। আমরা বড় আর অপ্রত্যাশিত একটি পরাজয় বরণ করেছি। রাশিয়া খুব ভালো করেছে। আমি বিশ্বাস করি না, প্রতিপক্ষ আমাদের চমকে দেওয়ার মতো কিছু করেছে। জয়ের জন্য ওদের খুব বেশি কিছু করতে হয়নি।”

চিলিকে বিশ্বকাপে নিতে ব্যর্থ হওয়ার পর সে দেশের কোচের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন পিস্সি। সাত মাস ধরে সৌদি আরবের দায়িত্ব পালন করা এই কোচ মনে করেন, মাঠে বাজে পারফরম্যান্সের প্রতিফলন স্কোর লাইন।