২৩, জুন, ২০১৮, শনিবার

মাত্র ৬২ মাইলের এই দেশটি বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ

আপডেট: মে ৩১, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
মাত্র ৬২ মাইলের এই দেশটি বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ

একটি দেশের নাম লিচেনস্টিন। অনেকে চমকে উঠবেন এই নামের কোনো দেশের নাম তো শুনিনি! খোদ ইউরোপের কেন্দ্রস্থলে এটি অবস্থিত। দু’টি স্থলপরিবেষ্টিত দেশ সুইজারল্যান্ড ও অস্ট্রিয়া ঘিরে রেখেছে ক্ষুদ্র এ দেশটিকে। পৃথিবীর কেবল আরেকটি দেশের এই অনন্য বৈশিষ্ট্য রয়েছে। মধ্য এশিয়ায় অবস্থিত এ দেশটির নাম উজবেকিস্তান। ইউরোপের চতুর্থ ক্ষুদ্রতম চেনস্টেইন। আশপাশের অন্য ইউরোপীয় দেশগুলো হলো জার্মানি, ফ্রান্স, ইতালি ও চেক প্রজাতন্ত্র।

লিচেনস্টিনের চেয়ে ছোট ইউরোপের অন্য দেশগুলো হলো যথাক্রমে খ্রিষ্টানদের পবিত্র ভূমি ভ্যাটিকান সিটি, মোনাকো ও স্যানমেরিনো। লিচেনস্টিনের চেয়ে ছোট বিশ্বের অন্য দুটো দেশ হলো নাউরু ও ট্যুভালু। এগুলো ওশেনিয়া অঞ্চলে অবস্থিত। মাত্র ৬২ বর্গমাইলের এ দেশটির অর্থনৈতিক সামর্থ্য বিস্মিত হওয়ার মতো। বার্ষিক জাতীয় উৎপাদন প্রায় দুই শত কোটি ডলার।

৩৫ হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত দেশটির মাথাপিছু জাতীয় উৎপাদন ৫৪ হাজার মার্কিন ডলারের বেশি।

ছোট্ট এ দেশের বিস্ময়কর অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির পেছনে কাজ করছে তাদের ব্যতিক্রমী ট্যাক্স সিস্টেম। দেশটি ইউরোপের ট্যাক্স হেভেন বা করস্বর্গ নামেও পরিচিত। এর ফলে পৃথিবীর অসংখ্য কোম্পানি দেশটিতে তাদের অফিস নিয়েছে। আরো বিস্মিত হওয়ার জোগাড় হবে এ দেশে রেজিস্ট্রিকৃত কোম্পানীর কথা শুনলে।

লিচেনস্টিনে নথিভুক্ত কোম্পানির সংখ্যা দেশটির জনসংখ্যার দ্বিগুণের বেশি। প্রায় ৭৫ হাজার কোম্পানির লেটারবক্স রয়েছে এখানে।

একনজরে লিচেনস্টিন

দেশের নাম : প্রিন্সিপালিটি অব লিচেনস্টেইন

রাজধানী : ভাডুজ

আয়তন : ১৬০ বর্গকিলোমিটা

জনসংখ্যা : ৩৪ হাজার ৬শ’

প্রধান ভাষা : জার্মান

প্রধান ধর্ম : খ্রিষ্টান

গড় আয়ু : ৭৫ বছর (পুরুষ) ৮২ বছর (মহিলা)

মুদ্রা : সুইস ফ্রাঙ্ক

প্রধান রফতানি দ্রব্য : মেশিনারি, খাদ্যদ্রব্য ও স্ট্যাম্প

এ দেশটির সুদীর্ঘ ইতিহাস রয়েছে। গির্জাকেন্দ্রিক ইউরোপীয় শাসনব্যবস্থা নানা সময়ে এর ওপর প্রভাব রেখেছে। বর্তমান রাজধানী ভাডুজের নামেই মধ্যযুগে একটি কাউন্টি ছিল। ভোরারলবার্গের মন্টফোর্টে রাজবংশের অধীনে ছিল সেটি। পনের শতকে পরপর তিনটি যুদ্ধে একেবারে বিধ্বস্ত হয় ছোট এলাকাটি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন