১৯, আগস্ট, ২০১৮, রোববার

কাগজপত্র ঠিক থাকলেই একদম ফ্রি হেলমেট দিচ্ছে পুলিশ

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
কাগজপত্র ঠিক থাকলেই একদম ফ্রি হেলমেট দিচ্ছে পুলিশ

ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে এক ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করে লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার। সোমবার (৬ আগস্ট) শহরের ঝুমুর এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ চেকপোস্টে মোটরসাইকেল আরোহীদের কাগজপত্র ঠিক থাকলেই পুলিশের পক্ষ থেকে চালকদের মাথায় একটি করে ফ্রি হেলমেট পরিয়ে দেওয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাব্বির রহমান সানি, ডি আই ওয়ান মো. ইকবাল হোসেন প্রমুখ।

এছাড়া যেসব যানবাহনের কাগজপত্র নেই ওইসব বাহনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে মামলা ও জরিমানা করা করা হয়।

তথ্যসূত্র: বিডি২৪লাইভ

আরোও পড়ুন-

আমার বুকে ওড়না নাই তাতে আপনার কি : শবনম ফারিয়া

‘কে বুকে ওড়না দিল, না দিল তাতে আপনাদের কী আসে যায়? আমি আপনার গার্লফ্রেন্ডও না, বউও না, বোনও না। তো আমি কী ছবি দিলাম কী করলাম তাতে আপনাদের এতো মাথা ব্যথা কেন?’- এই মন্তব্য মডেল অভিনেত্রী শবনম ফারিয়ার।সম্প্রতি এই অভিনেত্রীর ফেসবুকে ছবি পোস্ট করা নিয়ে কেউ কেউ নোংরা মন্তব্য করছেন। নোংরা মন্তব্যকারীদের উদ্দেশ্য এক ভিডিও বার্তায় বক্তব্য দেন ফারিয়া।

ফারিয়া বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগে আমার পেজে আমি একটি ছবি পোস্ট করি। তারপর এতে অসংখ্য মন্তব্য পড়ে। কিছু মন্তব্য দেখে আমি খুবই অবাক হয়েছি। আমার অ্যাডমিন দেখলাম এসব মন্তব্য ডিলিট করছে। আমি বললাম প্লিজ, এসব মন্তব্য ডিলিট করবেন না। আমি দেখতে চাই মানুষ কতটুকু পর্যন্ত যেতে পারে।’

‘ভাই, আপনাদের একটা মেয়ে ফুল হাতার কামিজ পরা, সারা শরীর ঢাকার এমন একটি ছবি দেখে যদি কোনো ছেলের… (শব্দটি ব্যবহার উপযোগি নয়)। তাহলে আপনারা এই ঈমান নিয়ে পুলসিরাত পার হবেন কীভাবে?’

শবনম ফারিয়া
এই অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘খুবই ভয়ংকর ব্যাপার। ছেলেদের তো বলাই হয়েছে তোমাদের নজর সংযম কর। একটা মেয়ের দিকে একবারের বেশি সেকেন্ড টাইম তাকাবেন না। আপনাদের ঈমান যদি শক্ত হয় তাহলে আপনারা মডেলদের ফলো করেন কেন? এটা খুবই গুরুতর অপরাধ।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার বাবা-মা, বোন সবাই তো হজ করা। তাদের তো কোনো সমস্যা নাই। আপনাদের এতো সমস্যা কেন? আমারও তো অনেক কিছুই ভালো লাগে না। সেগুলো আমি ইগনোর করি। আপনার ভালো না লাগলে আপনিও সেগুলো ইগনোর করুন।’

শবনম ফারিয়াফারিয়ার এই বক্তব্য নিয়েও স্যোসাল মিডিয়ায় সমালোচনা শুরু হয়েছে। রনি আলম নামের একজন লিখেছেন, ‘মডেল-অভিনেত্রীদের চলন-বলনে আরো সংযত হওয়া উচিত। তাদেরকে নতুন প্রজন্মের ছেলে-মেয়েরা ফলো করে। তাদের লাইফস্টাইল থেকে শিখতে চাই। শবনম ফারিয়ার মতো এমন মেয়েদের কাছ থেকে সমাজ কি শিখবে? শবনম ফারিয়ার এমন কথাবার্তা যে বাবা-মা হজ করে এসেও সহ্য করছে তাদের জন্য ঘৃণা করবো না, করুণা করবো বুঝতে পারছি না।’

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন