১৯, আগস্ট, ২০১৮, রোববার

যে কারণে এই সুপার হিট ছবিগুলো প্রত্যাখ্যান করেছিলেন কাজল

আপডেট: জুলাই ১৭, ২০১৮

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
যে কারণে এই সুপার হিট ছবিগুলো প্রত্যাখ্যান করেছিলেন কাজল

হিন্দি সিনেমার অভিনেত্রী কাজল। সাবলীল অভিনয় ও প্রাণখোলা হাসির কাজলকে দর্শক গ্রহণ করেছেন তাদের চিরচেনা পাশের বাড়ির মেয়েটির মত করেই। নিজের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’, ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’,‘মাই নেম ইজ খান’-এর মত ব্লকবাস্টার সিনেমার এই অভিনেত্রী ফিরিয়ে দিয়েছেন অনেক সিনেমাই। কিন্তু সেই সিনেমাগুলোই তার সমসাময়িক অনেক অভিনেত্রীর ক্যারিয়ারের মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হয়।

দিল তো পাগল হ্যায়

নব্বইয়ের দশকের শেষের দিকে মুক্তি পাওয়া ‘দিল তো পাগাল হ্যায়’ নিঃসন্দেহে হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে সেরা রোমান্টিক সিনেমাগুলোর একটি। মাধুরি দিকশিত, শাহরুখ খান এবং কারিশমা কাপুর অভিনীত সিনেমাটি ছিল সে বছরের সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমা। সেই সঙ্গে কারিশমা কাপুরকে এনে দেয় ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

তবে কারিশমার আগে এই চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল রাভিনা ট্যান্ডনকে। তিনি ফিরিয়ে দেওয়ার পর প্রস্তাবটি এসেছিল কাজলের কাছেও। কিন্তু পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করতে চাননি তিনি। আর তাই কারিশমার ঝুলিতেই যায় ‘নিশা’ চরিত্রটি।

শক্তি-দ্য পাওয়ার

২০০২ সালে মুক্তি পাওয়া অ্যাকশনধর্মী সিনেমা ‘শক্তি-দ্য পাওয়ার’-এ কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন কারিশমা কাপুর। মূলত সিনেমাটি হবার কথা ছিল অভিনেত্রী শ্রিদেবির ‘কামব্যাক ফিল্ম’, কিন্তু ব্যক্তিগত কারণে এতে অভিনয় করতে পারেননি শ্রিদেবি। এরপর এ চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দেওয়া হয় কাজলকে। সিনেমাটির পরিচালকের ধারণা ছিল, এমন একটি শক্তিশালী চরিত্রের জন্য কাজলই হচ্ছেন সেরা পছন্দ। কিন্তু রাজি হননি কাজল। লড়াকু এক মায়ের চরিত্রে অভিনয় করে সে বছর সেরা অভিনেত্রীর মনোনয়ন পেয়েছিলেন কারিশমা।

চালতে চালতে


‘চালতে চালতে’ সিনেমায় রানি মুখার্জির জায়গায় অভিনয় করার কথা ছিল ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের। কিন্তু নানা কারণে বাদ পড়েন ঐশ্বরিয়া। কিন্তু অনেকেই জানেন না, ঐশ্বরিয়ার পরে কাজলকে এই সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন শাহরুখ। অবশ্য নিজের ব্যস্ত শিডিউলের কারণে কাজল তখন সময় দিতে পারেননি।

প্রাথমিকভাবে ‘চালতে চালতে’তে কাজ করতে রাজি হননি রানিও, কারণ চরিত্রটি ‘সাথিয়া’ সিনেমায় করা তার চরিত্রের সঙ্গে অনেকটাই মিলে যাচ্ছিল। কিন্তু পরে তিনি রাজি হন।

কাভি আলবিদা না কেহনা


কারান জোহারের সিনেমা ‘কাভি আলবিদা না কেহনা’তে রানি মুখার্জি অভিনীত ‘ন্যায়না’ চরিত্রটি সৃষ্টি করা হয়েছিল মূলত কাজলকে মাথায় রেখেই। কিন্তু তখন কাজল ব্যস্ত ছিলেন আমির খানের সঙ্গে ‘ফানা’র শুটিংয়ে।

সিনেমায় প্রিতি জিনটা অভিনীত চরিত্রটির জন্য প্রথমে প্রস্তাব দেওয়া হয় রানিকে, যা ছিল উচ্চাকাঙ্ক্ষী এক নারীর চরিত্র। কিন্তু কাজলের ব্যস্ততার কারণে তিনি অভিনয় করেন আত্মকেন্দ্রীক ‘ন্যায়না’র চরিত্রে। আর ঐ চরিত্রে অভিনয় করেন প্রিতি।

যদি কাজল ‘কাভি আলবিদা না কেহনা’তে অভিনয় করতে রাজি হতেন, তবে ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর পর আরও একবার শাহরুখ, কাজল এবং রানিকে একসঙ্গে দেখা যেতো।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন