নেইমার যেভাবে সবার চেয়ে এগিয়ে

রাশিয়া বিশ্বকাপের হিসাব আমলে মেসি ও রোনালদোর সঙ্গে নেইমারের তুলনা চলে না। দ্বিতীয় রাউন্ডেই বাদ পড়েছে আর্জেন্টিনা ও পতুর্গাল। এখন দর্শক হিসেবে বাকি বিশ্বকাপটা দেখতে হবে এই দুই বড় তারকাকে। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স ভালো হলেও দলকে উপরে টেনে নিতে ব্যর্থ হয়েছেন মেসি ও রোনালদো। অন্যদিকে খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসে প্রায় ব্রাজিলকে কোয়ার্টার ফাইনালে তুলে দিয়েছেন নেইমার।

মেক্সিকোর বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছে ব্রাজিল। এক গোল করার পাশাপাশি ফিরমিনোকে দিয়ে গোলও করিয়েছেন নেইমার। এনিয়ে বিশ্বকাপে ব্রাজিল তারকার গোল হলো সাতটি। এই গোল করতে নেইমার গোলপোস্টে শট নিয়েছেন মাত্র ৪০টি। এতো কম শট নিয়ে সাত গোলের রেকর্ড ফুটবল বিশ্বে বিরল।

বিশ্বকাপে গোল সংখ্যায় আজ মেসিকে ছাড়িয়ে গেলেন নেইমার। চারটি বিশ্বকাপ খেলে ছয়টি গোল করেন আর্জেন্টাইন তারকা। নিজের দ্বিতীয় বিশ্বকাপেই সাবেক ক্লাব সতীর্থকে ছাড়িয়ে গেলেন নেইমার। মেসিকে ছাড়িয়ে আজ রোনালদোর পাশে বসলেন ব্রাজিল তারকা। বিশ্বকাপে রোনালদোর গোল সাতটি।

একটা জায়গায় অবশ্য মেসি রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেলেন নেইমার। ছয়টি গোল করতে মেসিকে গোলমুখে ৬৭টি শট নিতে হয়েছে। অন্যদিকে মেসির সমান গোল রোনালদো শট নিয়েছেন ৭৪টি। সেই তুলনায় অর্ধেকেরও কম শট নিয়ে সিনিয়র দুই গ্রেটকে ছাড়িয়ে গেলেন ব্রাজিল সেনসেশন। ছয় গোল করতে নেইমার শট নেন মোটের ওপর ৩৮টি। সাত গোল করতে গোলমুখে ৪০টি শট নিতে হয়েছে পৃথিবীর সবচেয়ে দামি এই ফুটবলারকে।